ব্লান্ট ভোয়েসেস (৪)

ব্লান্ট ভোয়েসেস (৪)

SHARE:

রিলেশনশিপ নিয়া আমি কোনো উপসংহারে যেতে পারি না। আমার জন্যে এইটা ভারি মুশকিলের ব্যাপার হয়ে যায় যে একটা রিলেশনশিপ নিয়া হেস্তনেস্ত ঘটানো। তবু যে এইটা করতে হয় আমাদেরে, এইটা যতটা না আমার নিজের গরজে তারচেয়ে বেশি চারপাশের মানুষের গরজে। আমরা চারপাশটা খামাখাই খুশি রাখতে চাই, তোয়াজ করে যাই। রিলেশনশিপ তো হচ্ছে একটা অ্যাডভেঞ্চার।

যখন যা কথা তখনই তা করে ফেলা আমার কাছে একমাত্র কাজের সংজ্ঞা। কাজ বা জব বলতে আমি এইটাই বুঝি। ঠিক সময়ে ঠিকঠাক কর্তব্য সম্পাদন। এছাড়া কাজ আর কি?

প্রিমিয়ারের অনুষ্ঠানগুলায় যদি যাওয়ার অভিজ্ঞতা থাকে আপনার, দেখবেন যে এই প্রিমিয়ার অনুষ্ঠানগুলা আসলে একেকটা ছোটখাটো ডিজনিল্যান্ড ছাড়া আর কিচ্ছু না।

মাথাখারাপের মতো ঘটনা ঘটে যখনই ভাবি যে চারপাশে এত এত ঘুরে-বেড়ানো অভিনয়শিল্পীরা, যাদের প্রত্যেকেই নামজাদা, তারা জানে আমি কে।

ম্যারিজ বা শাদি জিনিশটা হচ্ছে এমন যেইটার দিকে খেয়াল রাখতে হয় এবং রোজ নিয়ম করে এর যত্নআত্তি নিতে হয়। বিয়াশাদি বিষয়ে অ্যাডভাইস দিবার এখতিয়ার আমার আছে কি না আমি সন্দিহান, কারণ আমার নিজেরটাই টিকাইতে পারি নাই বছর অব্দি। কিন্তু সত্যি সত্যি আমি জানি যে ম্যারিজ জিনিশটা আদতে একদম সোজা মামলা আপনার জন্যে, যদি আপনি হন খোলামন, উদার, দিলদরিয়া আর মায়ামমতাময়।

চয়ন, সংকলন ও অনুবাদন : বিদিতা গোমেজ

… …

পড়ুন:

ব্লান্ট ভোয়েসেস (৫)

বিদিতা গোমেজ

অবদায়ক, গানপার 

COMMENTS

error: