এমিলি মর্টিমার উক্তিনিচয় (৪)

এমিলি মর্টিমার উক্তিনিচয় (৪)

SHARE:

এমনিতেই নিজের প্রতি তিতিবিরক্ত আমি স্ক্রিনপ্লে লেখার কাফফারা দিতে যেয়ে। কেন-যে এই ছাতার চিত্রনাট্য রচনার কাজটা ধরতে গেসিলাম, নিজেরই মালুম হয় না। ব্যাপারটা ওই অনেকটা যেন মডেল-সিঙ্গার-ড্যান্সার-অ্যাক্ট্রেস যখন পড়াশোনা বাড়াইবার লিগা দামি ইশকুল-কালেজে ভর্তি হয় তেমনই। স্ক্রিনপ্লে লেখার ক্ষেত্রে কিছু জিনিশ আছে একদমই প্রেডিক্টেবল, আগে থেকেই আন্দাজ করে নেয়া যায় ভালোমতো।

অভিনয়ের আরও অনেককিছু অনেক জিনিশই আমি আবিষ্কার করতে চাই।

আমি প্রোফেশন্যাল হিশেবে এখনও অর্ধেকটা স্বীকৃতিও পেয়েছি বলা যাবে না। আমি জানি যে আমি ভীষণ প্রোফেশন্যাল। বকেয়া পাওনা আমারে কড়ায়গণ্ডায় বুঝিয়ে দেয়া হয়, আমিও উশুল-আদায় করি। কিন্তু সবচেয়ে ভালো করতে পারি যে-জায়গায় তা হচ্ছে অভিনয়ের সময়, মানে যখন অভিনয় করি তখন সব ঝেড়েঝুড়ে নিজেরে চাঙ্গা রাখি এবং মাথা রাখি সচল। এইটাই আমার সবচেয়ে বড় প্রোফেশন্যালিজম আমি মনে করি।

অর্ধেকটা টাইম আমি খালি ভাবতেই ব্যয় করি যে এই কাজটা কেমনে করি মাবুদে এলাহি জানেন, চউখে আন্ধাইর দেখি। একটা সার্টেইন পর্যায় পর্যন্ত এই ভীতিটা কাজের ব্যাকগ্রাউন্ড প্রিপারেশন হিশেবে ম্যে-বি ঠিক আছে, তাই বলে নিজেরে হাঁদারাম বোকা ভাবলে চলবে না। রাস্তা বাইর করতে হবে সেরাটাই নিজে নিজে এবং নিজের জন্যে।

ভোরে ওঠা আমার অভ্যাস। ভোরবেলায় দিন শুরু করি আমি। ধরেন যে অ্যারাউন্ড সাড়ে-ছয়ের দিকে। যেদিন সাড়ে-ছয়ের দিকে দিন শুরু করতে পারি না, সেদিন নিজেকে যথেষ্ট আশাবাদী ভাবতে পারি না।

ব্রেকফাস্ট আমার কাছে সারাদিনের খাবারের মধ্যে সেরা খাবার। সবার জন্যই বাসায় আমি ব্রেকফাস্ট বানাই এবং আমার বানানো ব্রেকফাস্ট বহরে অনেক বড় হয়ে থাকে। ব্যেইকন এবং এগ্ তো থাকবেই। আমার বাসায় ব্রেকফাস্টের ডিম প্রিপারেশনের জন্যে একগাদা এগকাপ কিনে রেখেছি।

চয়ন, সংকলন ও অনুবাদন : বিদিতা গোমেজ

… …

COMMENTS

error: