চিরদিনের অব্যাখ্যেয় সম্পর্কের লড়াই || ইফতেখার মাহমুদ

চিরদিনের অব্যাখ্যেয় সম্পর্কের লড়াই || ইফতেখার মাহমুদ

SHARE:

বাবা-মেয়ের সম্পর্কের সূক্ষ্ম দ্বন্দ্ব নিয়ে আরেকটা সিনেমা এই ‘জ্যাক রিচার’ (Jack Reacher)

জ্যাক রিচারের রচয়িতা লি চাইল্ড (Lee Child), — এটা অবশ্য তার পেন নেম। এই লেখক ভদ্রলোকও ল পড়েছেন। লম্বা গড়ন, ছয় ফিট তিনের একটু বেশিই হবে, সুপারশপে ওপরের তাক থেকে এটা-ওটা পেড়ে দেয়ায় জন্য লোকেরা তাকে অনুরোধ করত, তার স্ত্রী তাকে এই জন্যেই REACH-er বলে সম্বোধন করত। তিনি যখন লিখতে শুরু করেন, তখন জ্যাক রিচার নামটাই তার মাথায় আসে।

জ্যাক রিচার নামের যে-সিনেমাটা আমরা দেখতে পাই, সেটা তার One Shot নামের উপন্যাসের ভিজুয়াল ভার্শন। থ্রিলার হিসেবে ‘জ্যাক রিচার’ পৃথিবী-বিখ্যাত।  তবে, এর মধ্যে অন্য সম্পর্কগুলোর কোনো-কোনোটার যে নিবিড়তা দেখা যায়, সেটা কম আকর্ষণীয় নয়। বরং সেটাই সম্ভবত তার উপন্যাসগুলোকে অনন্য করেছে।

মূল গল্প বাবা-মেয়ের নয়, তবু বাবা-মেয়ের যে লড়াই সিনেমার ভেতরে মিশে আছে, সেটা চিরদিনের সন্তান-পিতার বোঝাপড়ার যুদ্ধ।  এখানে আইনজীবী বাবার সাথে আইনজীবী মেয়ে সেই অসরল লড়াই শেষ পর্যন্ত চালিয়ে যায়। এটা পৃথিবীর চিরদিনের এক অব্যাখ্যেয় সম্পর্ক।

জ্যাক রিচার কারো মতো নয়। এই এক আশ্চর্য বৈশিষ্ট্যই তাকে প্রিয় করে তুলেছে। নানাকিছুতে একেকটা থ্রিলার ভরপুর হয়ে থাকে। কিন্তু কেবল মূল চরিত্রের প্রতি টেনে ধরে রেখে উপন্যাস চালিয়ে যাওয়া কঠিন। জ্যাক রিচারে সেটা দেখার সৌভাগ্য পাঠকের ঘটে।

জ্যাক রিচার এক গল্পের নায়ক, তার চেয়ে বেশি কিছু না, কিন্তু যেটা তাকে বেশি দিয়েছে, সেটা নিজেকে মুক্ত রাখার ব্রত, যা আসলেই খুব বেশি দেখা যায় না। তাকে বলতে শোনা যায় —

“Time to see what you’ve given up your whole life for, everything.
Get some of that ‘freedom’ for yourself. 
Look at the people. You tell me which ones are free. 
Free from debt. Anxiety. Stress. Fear. Failure. Indignity. Betrayal. 
How many wish that they were born knowing what they know now.
Ask yourself how many would do things the same way over again, and how many would live their lives like me.”

… …

COMMENTS

error: