পিকি ব্লাইন্ডার্স || ফাইয়াজ বিন নুর

পিকি ব্লাইন্ডার্স || ফাইয়াজ বিন নুর

মাফিয়া গ্যাংস্টার ম্যুভি আর সিরিজগুলোর মধ্যে একরকম তোলপাড়-ঘটানো সিরিজ মনে হয়েছে পিকি ব্লাইন্ডার্স (Peaky Blinders) সিরিজটাকে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পরবর্তী মুহূর্তে ইংল্যান্ডের বার্মিংহ্যাম শহরের গ্যাং পিকি ব্লাইন্ডার্স নিয়ে তৈরি সিরিজটি। আর গ্যাংলিডার টমাসের অভিনয়ে হলিউড-অভিনেতা সিলিয়ান মার্ফির অভিনয় সিরিজটিকে অন্যরকম অসাধারণ করে তুলেছে। হলিউডের অভিনয় বিশ্বের বেশ পরিচিত অনেকগুলো মুখ দেখা যায় সিরিজে। টম হার্ডি (সিরিজে আলফি সলোমন) হয়তো তার হলিউডলাইফের সব পরিশ্রম পিকি ব্লাইন্ডার্স সিরিজেই করে ফেলছেন। স্যামুয়েল ক্লেফিনকেও দেখা যায় ৫ম সিজনে।

শ্যুটিং চলাকালীন হয়তো ডিরেক্টর হুইস্কির কোনো ফ্যাক্টরির সাথে ডিল করেছিলেন। যেই পরিমাণ খরচ মদের আর সিগারেটের পিছনে করা হয়েছে, অন্য কোনো ক্ষেত্রে এতটা হয়নি ধারণা করি। যা-ই হোক গ্যাংস্টার রিলেটেড সিরিজ বলে কথা, সম্পূর্ণ বীভৎস অবস্থা না দেখালে দর্শকমাতানো তো আর সম্ভব না। কাটপিসের বাধ ভেঙে দেয়া হয়েছে একরকম। উঠতে বসতে নগ্ন হয়ে যাওয়া হলিউডের কাছে কোনো ব্যাপারই না। এইদিকে আমরা বাঙালিরাই সবথেকে পিছিয়ে আছি বলে মনে হয় গোটা বিশ্বের থেকে।

টমাসের জীবন থেকে আবার অনেককিছু শিখে ফেলারও রয়েছে, যেমন রিভোল্যুশন আপনাআপনি আসে না কখনো, কাউকে না কাউকে তো আনতেই হয়। পরিবর্তন সেই আদিমকাল থেকেই যে-রকম চলে আসছে পৃথিবীর। ম্যুভিসিরিজে অবশ্য একটু বেশিই দেখানো হয়ে যায়, বাস্তবে আদৌ সবকিছু তো হয় না। করোনাবিপর্যয়ে অন্যান্য সবকিছুর মতোই সেট বন্ধ রাখা হয়েছে পিকি ব্লাইন্ডার্স-এরও। এখন পর্যন্ত ৫টি সিজন রিলিজ করা হয়েছে।

peaky blindersনিক কেইভের ‘রেড রাইট হ্যান্ড’ গানের কথাগুলো টমাসের ভাবগত বৈশিষ্ট্যের সাথে মিলে যাওয়ায় সিরিজের থিমস্যং হিসেবে গানটির কোনো বিকল্প হয় না। এছাড়াও ডিরেক্টরের অন্যান্য সব মিউজিক সিলেকশন খুবই ভালো ছিল প্রতিটা দৃশ্যপটের সাথে খাপ খাওয়ানোর ব্যাপারে।

এত রিয়্যালিস্টিক না হলেও ড্রামার দিক দিয়ে পিকি ব্লাইন্ডার্স অন্যান্য গ্যাংস্টার ম্যুভি/সিরিজ থেকে কয়েকধাপ এগিয়েই যা মনে হলো। বেশিরভাগ জায়গায় কমেডি গুঁজে দেয়ায় একপর্যায়ে কমেডি সিরিজই মনে হয়েছিল। সিরিজের প্রতিটি ক্যারেক্টারের অভিনয়ই অসাধারণ। মেইন ক্যারেক্টারদের বাদ দিয়ে আউটসাইড যাদেরকে সিরিজে দুই-একজায়গায় দেখানো হয়, তাদের অভিনয়েও কোনো গা-ছাড়া ভাব রাখা হয়নি। বোঝা যায় খুব মজা করেই শ্যুটিংকাজ সম্পন্ন করা হয়েছে প্রতিটা জায়গাতেই।

… …

COMMENTS

error: