বলেন স্যুস্যান

বলেন স্যুস্যান

SHARE:

সহমর্মিতা আর কল্পনাচারিতার ক্ষমতাটা আপনার যত বাড়বে, দেখবেন এই বিশ্বজগৎ আপনার সামনে ততই উন্মুক্ত হচ্ছে।

মুখিয়ে আছি বুড়ো হবার দিকে। বুড়ো হবার একটা ফায়দা এ-ই যে তখন আর আপনাকে কেমন দেখাচ্ছে এইসব নিয়া খামাখা ব্যতিব্যস্ত হতে হবে না। আপনি যা এবং যেমন ঠিক ঠিক তা এবং তেমন উপস্থাপিত ও গ্রহণীয় হবেন বুড়াকালে যেয়ে।

চেষ্টা করি জীবনটা যাপন করতে প্রতিদিন বর্তমানের জমিনে দাঁড়িয়ে, বর্তমানের বায়নাক্কা মানিয়ে এবং মেনে, চেষ্টা করি জীবনের চাহিদা আর চালিয়াতিগুলার থেকে চোখ না সরিয়ে চোখে চোখ রেখে বাঁচতে।

অ্যামেরিকাবিদ্বেষী চিহ্নছাপ্পা গায়ে মেখে আমারে চলতে হয় কেননা আমি বিতিকিচ্ছিরি কিছু নজরে এলেই কথা না বলে ধামাচাপা দিয়া থাকতে পারি না।

রতিক্রিয়া ব্যাপারটা হচ্ছে বেইসবল খেলার মতো। সংশয়হীন শান্ত থাকুন, হুড়োহুড়ি করবেন না, মনঃসংযোগ ঘটান পূর্ণ।

বলা হয়েছিল নারীজন্মে এমনিতেই আমি সীমাশুমারহারা পাতকিনী পাপী।

কী চমৎকার হবে সেই দিনগুলা যেদিন একটা নারী এই পৃথিবীতে মোটামুটি মর্যাদাপূর্ণ ছোটছাটা কাজ পেতে যেয়ে তেমন ধকল সইবে না।

মাঝেমাঝে এমনও হয় যে নিয়ন্ত্রণাতীত অনুভূতিগুলা আপনারে এসে পাকড়াও করে এবং অধিকৃত রেখে দিতে চায় আপনারে আশরীর; হতে পারে এই অনুভূতিটা আপনার খাদ্যাভ্যাস সংক্রান্ত অথবা নাকের শৈল্যচিকিৎসা ইত্যাদি কিছু-একটা, আর যদি অনুভূতিনির্দেশের কথা পালন করে এগিয়ে যেতে পারেন তো দেখবেন মামুলি চিন্তাচাপগুলা হাল্কা হয়ে যেতেছে আপনাআপনি।

আশঙ্কাজনক এমন এক বিপদসঙ্কুল সময়ে আমরা বাস করছি যখন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের মুখে একটা সম্ভাব্য পতিপ্রার্থী নির্বিচারে এমন সমস্ত খুনখারাবি শুরু করে শেষও করে ফেলবে সে নির্বাচিত হবার আগেই যা অ্যামেরিকার আগের রাষ্ট্রপতিদের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাবে।

লাশবস্তায় পোরা আমাদের সৈন্যসন্তানেরা বাড়ি পৌঁছাবার আগে এবং অকাতরে নিরীহ নারী আর শিশুরা বাগদাদে দিনেদুপুরে মার্কিন সেনাদের হাতে খুন হবার এই সময়ে আমি জানতে চাই ইরাক আমাদের কার বাড়া ভাতে ছাই দিয়েছিল? যুক্তরাষ্ট্রের কোন ক্ষতিটা করেছিল ইরাক, সহস্র না একশটা না একটা ক্ষতি করেছিল বলে কেউ কি দেখাইতে পারবেন?

নষ্ট দুনিয়াটা আমাদের শিশুরাই করবে পুনরাবিষ্কার।

যুক্তরাষ্ট্রে এতই সভ্য লোকেরা থাকে যে মহল্লার সব্বাই খালি একটা কথাই জানতে ব্যগ্র থাকে এবং সেই কথাটা হলো তুমি কাইল রাইতে কার লগে সেক্স করেছ।

চয়ন, সংকলন ও অনুবাদন : বিদিতা গোমেজ

… …

COMMENTS

error: