নয়েজের নন্দন || আহমদ মিনহাজ

নয়েজের নন্দন || আহমদ মিনহাজ

Sound of Noise নামের সুইডিশ ছবিখানার ব্যাপারে প্রাক-ধারণার জন্য উইকি বা আইএমডিবিতে ঢুঁ মারতে পারেন। না মারলেও ক্ষতি নেই। তবে হ্যাঁ, এর মৌল প্রেরণা যেথা হইতে আসে সেখানে ইতালীয় সংগীতকার লুইগি রুসোলো-র (Luigi Russolo) The Art of Noises নামক পুস্তিকা সাইজের ইস্তাহারের অবদান অশেষ। গানে সুর লাগানোর ঐতিহাসিক বিবর্তন নিয়া রুসোলো তাঁর ইস্তাহারে আলাপ করছিলেন। বিংশ শতকের গোড়ায় বসে করা আলাপটা বলাবাহুল্য চিত্তাকর্ষক। সময়ের পালাবদলে লোকজনের গানবাজনায় মাস্ত হওয়ার অভ্যাস ও গানে সুর লাগানোর বিবর্তনকে বর্গীকরণ করার পাশাপাশি অদূর ভবিষ্যতে গানে কীভাবে সুর জোড়া হবে ইত্যাদির আন্দাজ ও নকশা ইস্তাহারের আসলি জিনিস।

নিজের ও অনাগত সময়ের গানাবাজনায় প্রাসঙ্গিক হইতে পারে এমন সব বাদ্যযন্ত্র তৈরির ঝোঁক রুসোলোর মধ্যে প্রবল ছিল। লোকে সচরাচর যেসব বস্তু বা অবজেক্টকে গানে ব্যবহারের কথা কদাপি ভাবে না সে-রকম সব উপকরণ এস্তেমাল করে সুরাবেশ তৈরির কামে জীবন তামা করছিলেন এই ভদ্রলোক। সংযুক্তির অনিবার্যতা বিষয়ে The Art of Noises-এ তাঁর যুক্তিগুলা অধমের কাছে সময়-প্রাসঙ্গিক মনে হইছে।

রুসোলোর ইস্তাহার সংগীতকার (Futurist Musician) ফ্রান্সেসকো বালিল্লা প্রাতেলাকে লিখিত পত্রও বলা যাইতে পারে। গানে Unusual নয়েজ (তা-বলে তারা সুরাবেশ বঞ্চিত নহে মোটেও।) জোড়ার নৈরাজ্যটা কী কারণে সময়-সময় অনিবার্য হয় সেই হদিশ পাইতে (*এতদসঙ্গে Sound of Noise-র মতো আজিব ছবিখানার ফিলসফি বোঝার খাতিরেও বটে…) এই সিনেমাখান দেখা যাইতে পারে।

ফাঁকতালে পড়ে নিয়েন। উইকিতে এর নির্যাসটাও ইচ্ছে করলে পাঠ যাইতে পারেন। . . . 

লিংক : Sound of Noise: Ola Simonsson & Johannes Stjärne Nilsson;


আহমদ মিনহাজ রচনারাশি

COMMENTS