ব্লান্ট ভোয়েসেস (৬)  

ব্লান্ট ভোয়েসেস (৬)  

অ্যাওয়ার্ড দেয়া-নেয়ার অনুষ্ঠানটা আসলে একটা বাজার, মাংসের বাজারের কারবার মনে হয় পুরাটা, কে অ্যাওয়ার্ড পাবে কে পাবে না আগে থেকে প্রেডিক্ট করতে যাওয়াটাই বৃথা, কারণ কে কি করছে এইটা দেখে মনে হয় না অ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়। এই দেয়া-নেয়ার চক্করে পড়ে গেলে মনে হয় না আপনি ভালো কোনো কাজ করতে পারবেন। আশা করি গিভ অ্যান্ড টেইকের চিন্তা মাথায় রেখে কেউ ম্যুভি বানান না। আর আপনি যদি একবার আপনার মূল ফোকাস থেকে বিচ্যুত হয়ে যান, বা আপনি যদি অ্যাওয়ার্ডের লিগা লালায়িত থাকেন, আপনার প্রোজেক্ট মনে হয় না আপনি যেদিকে চান সেদিকে আগায়ে নিতে পারবেন। যদি থাকেন, যদি লালায়িত থাকেন অ্যাওয়ার্ডের জন্য, মনে হয় পুরা ব্যাপারটার প্রতি অবিচার করবেন আপনি।

ক্যুয়িন ভিক্টোরিয়ার আর্লি দিনগুলি নিয়া আমার প্রায় না-থাকার মতোই ছিল নলেজের বহর। সবাই যেমনটা ভাবে আমিও অবিকল তা-ই ভাবতাম যে ক্যুয়িন একজন বয়স্ক নারী যিনি কিনা ব্ল্যাক ড্রেস পরে থাকেন সবসময়, একটা শোকাতুরা নারীমূর্তি, বিষণ্ণ। পয়লা আমার মা আমারে উনার সম্পর্কে বলেন এবং আমার ভুলগুলা ভাঙে। এইটা আমি জানতে পারি যে উনার খুবই প্রেমময় একটা সম্পর্ক ছিল অ্যালবার্টের সঙ্গে, উনাদের অনেক বাচ্চাকাচ্চা হয়, এবং অ্যালবার্ট অতি অল্প বয়সে ইন্তেকাল করেন।

ধীরগতির ঘটনাধারার রোম্যান্স আমার পছন্দ। বেশিরভাগ ম্যুভিতেই দেখবেন যে ফার্স্ট সিনেই পোশাক খুলে ফেলতে চায়, ক্যারেক্টারদের যেন তর সয় না, ফার্স্ট সিনেই তারা চায় ছিঁড়েফেড়ে ফেলতে গায়ের জামাকাপড়।

স্বল্পমেয়াদী রিলেশনশিপের পক্ষে আমি উকালতি করতে চাই। দীর্ঘমেয়াদী রিলেশনশিপগুলা সাধারণত এমন আন্দাজটাই দেয় যে এইখানে একটাকিছু কারণ-রিজন আছে সম্পর্ক লম্বায়িত করবার। সম্পর্কের বিউটিটা আর প্রধান থাকে না দীর্ঘমেয়াদের ক্ষেত্রে। একটানা দুইবছর যদি রিলেশনশিপ চলে এবং সেখানে বিবাহ হয় না, আমি আশ্চর্য হয়ে প্রায় মুষড়ে পড়ব।

লোকে কিছু-না-কিছু জানতে ব্যগ্র থাকে সবসময়, একটাকিছু বা যে-কোনোকিছু হলেও উদগ্রীব থাকে কেবল জানতে, স্রেফ ভুয়া হলেও তথ্যজ্ঞাত হতে চায় তারা। আপনি নিশ্চয় নিজের একান্ত ঘটনাগুলো কথাবার্তাগুলো লোকেরে জানতে দিতে চাইবেন না।

অ্যালাস্কায় আমি দ্বিতীয়বারের মতো যোগব্যায়ামের অনুশীলনী সেশনে যোগ দিব মনস্থ করেছি। নিজেকে এই যোগানুশীলনের মাধ্যমেই উষ্ণ ও তাজা রাখতে পারি আমি। তাছাড়া গায়েগতরে একটু শেইপে ফেরাতে হবে নিজেরে। এই কারণেও যোগ অব্যর্থ দরকারি জিনিশ। ফিশ এবং চিপ্স ছাড়া আমি কিছুই মুখে তুলছি না লাস্ট কয়দিন ধরে।

সেটে যেয়ে একদম দেবী মনে হয় নিজেরে।

চয়ন, সংকলন ও অনুবাদন : বিদিতা গোমেজ

… …

গানপার

COMMENTS

error: