নায়িকা থেকে গায়িকা

নায়িকা থেকে গায়িকা

হলিউডনায়িকা জেনিফার লোপেজ (Jennifer Lopez) যে একদিন সত্যি সত্যিই নায়িকা থেকে গায়িকা হয়ে উঠবেন, এমন ধারণা জেলো-র নিকটজনরা করেছিলেন আগেই। কারণ ছেলেবেলা থেকেই তার পোয়ের্টোরিক্যান বাবা-মা গান এবং নাচের ব্যাপারে উৎসাহ যুগিয়ে এসেছেন। এরপর একটা সময় অভিনয়টাই তার জন্য বড় হয়ে উঠলেও ‘সেলেনা’ ছবিটা করার পর গায়িকা হবার ইচ্ছেটা প্রবল হতে থাকে। এই ছবিতে জেনিফার অভিনয় করেছেন তেজানো গায়িকা সেলেনার চরিত্রে। ছবির গানগুলো কিন্তু জেনিফার নিজের গলায় গাননি।

জেনিফারকে মিউজিকঅ্যালবাম করার কাজে সবচেয়ে বেশি উৎসাহ জুগিয়েছেন সনি মিউজিকের প্রধান টমি মোটোল। প্রথমে অ্যালবামটির নাম রাখা হয়েছিল ‘দ্য ওয়ার্ক’; কিন্তু জেনিফারই এর নাম দেন ‘অন দ্য সিক্স’। অ্যালবামের কাজের জন্য, নাচের রিহার্সেলের জন্য, তিনি প্রতিদিন ছয়টার ট্রেনে চেপে রিহার্সেলস্থলে যেতেন।

Jennifer Lopezজেনিফার তার অতীতস্মৃতি স্মরণ করে বলেন, “কিছু কিছু গানের কথা ভোলা যায় না। ক্রিসম্যাস মানেই সালসা, আর থ্যাঙ্কসগিভিং-এ ‘ওয়েস্ট সাইড স্টোরি’ ছবির গানটি। যখনই বারবারা স্ট্রেইসান্ডের গান শুনতাম আনন্দে আত্মহারা হয়ে যেতাম।”

জেনিফারের ডেব্যু-অ্যালবামের জন্য যারা কাজ করেছেন তারা পাশ্চাত্যের মিউজিকে একেকটি প্রতিষ্ঠিত নাম। এদের মধ্যে আছেন এমিলিয়ো এস্তেফান, গ্র্যামিবিজয়ী রডনি জার্কিন্স প্রমুখ। লোপেজ তার পয়লা অ্যালবামে গানগুলোর কথার ওপর জোর দিয়েছেন বেশি। “গানগুলো হৃদয় ছুঁয়ে যাওয়া, কথাগুলো যে-কাউকে আলোড়িত করবে। চোখ বন্ধ করে ভাবলেই মনে হবে গানগুলো প্রভাবিত করছে শ্রোতাকে” — বললেন জেনিফার।

পোয়ের্টোরিক্যান হবার কারণে ল্যাটিন হিপ-হপ, সালসা, ডিস্কো, র‍্যাপ এবং রিদম অ্যান্ড ব্লুজের ভালো কম্বিনেশন খুঁজে পাওয়া যায় জেনিফারের গানে।

Jennifer Lopezডেব্যু হয়েছে যে-অ্যালবামটি দিয়ে, জেনিফার লোপেজ নায়িকা থেকে গায়িকা হিশেবে আলোয় এসেছেন যে-অ্যালবামটি দিয়ে, সেই ‘অন দ্য সিক্স’ অ্যালবামে জেনিফারের প্রিয় গানটি হলো ‘ফিলিং সো গ্যুড’। লক্ষণীয় যে অ্যালবামে একটি ডুয়েট গান আছে। ল্যাটিন স্যুপারস্টার মার্ক অ্যান্থোনির সঙ্গে সেই ডুয়েট।

জেনিফারের অভিষেক-অ্যালবামের ‘গ্যুড হ্যাভ নেভার’ গানটি রুনির সঙ্গে লিখেছেন। অনেকেরই ধারণা গানটি তিনি লিখেছেন তার প্রাক্তন স্বামী ওজ্যানি নোয়াকে উদ্দেশ্য করে। জেনিফার অবশ্য অস্বীকার করেছেন বিষয়টি।

‘ইসা ইউ হ্যাড মাই ল্যভ’ গানটিও লোপেজের পয়লা অ্যালবামের উল্লেখযোগ্য একটা গান। এই গানটি নিয়ে একটি মিউজিকভিডিয়ো তখনই নির্মাণ করা হয়। মিউজিকভিডিয়োটিতে মডার্ন পাবড্যান্সের সঙ্গে সালসার সমন্বয় ঘটানো হয়েছে।

গায়িকা হবার স্বপ্ন নিয়ে অভিনেত্রী হয়েছিলেন তিনি। জেনিফার লোপেজের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। জেলো মনেপ্রাণে বিশ্বাস করেন যে প্রবল ইচ্ছের কাছে হার মানে সবকিছু। অভিনয় এবং গানগাওয়া চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি সমানতালে, বেগ পেতে হচ্ছে না গানের পাশাপাশি নাচ আর মঞ্চমাতোয়ারা পার্ফোর্ম্যান্স সহ অভিনয় চালিয়ে যেতে।

 

প্রতিবেদনকারী : প্রিসিলা হক ।। জিনাত জাহান
সূত্র : চতুর্থ বর্ষ পঞ্চম সংখ্যা আনন্দভুবন ১৯৯৯ ঢাকা
গানপার কর্তৃক ঈষৎ সম্পাদিত

… …

COMMENTS