ঈদ মুবারক ফ্রম সিলেট! || কাজল দাস

ঈদ মুবারক ফ্রম সিলেট! || কাজল দাস

ঈদ মুবারক ফ্রম সিলেট!

সিলেটে শহর আগামী ১০-২০ বছরের মধ্যেই স্থনান্তর করার দরকার পড়বে। ইতিহাসে অনেক দেশ আর শহর পানি বৃদ্ধির কারণে পরিত্যক্ত হবার রেকর্ড আছে।

প্রতিবার বর্ষায় ডুবে যাওয়াটা স্থায়ী পরিবর্তন হিসেবে দেখা দিয়েছে সিলেটে।

গত ১০ বছরের ট্র‍্যাকরেকর্ড অ্যানালাইসিস করলে দেখা যাবে সিলেট শহরের অনেক এলাকাতেই স্বাভাবিক বন্যায় ডুবে যায় রাস্তাঘাট। অতিরিক্ত বন্যায় বাসার নিচতলায় পানি প্রবেশ করে।

২০২২ সালের বন্যার সময়ও পুরো শহর ডুবে গিয়েছিল। তার আগে ’১৮ সালের দিকেও কিছু কিছু এলাকা ডুবেছে।

সিলেট শহরকে তথা পুরো সিলেটকে টিকিয়ে রাখতে হলে মাস্টার প্ল্যান করে মেগা প্রজেক্ট নেয়া দরকার।

নদী খনন করে, খাল-বিল পুনরুদ্ধার করতে হবে। এই ম্যাপ বিস্তৃত করতে হবে সিলেটের জৈন্তাপুর, কানাইঘাট, গোয়াইঘাট উপজেলা হতে শুরু করে কিশোরগঞ্জ পর্যন্ত।

বৃষ্টির পানি যত দ্রুত সমুদ্রের দিকে গিয়ে পড়বে ততই পানি জমে বন্যা পরিস্তিতি থেকে এই অঞ্চলের মানুষ কিছুটা রেহাই পাবে।

কাজল দাস রচনারাশি
কুর্বানির ঈদ গানপার সংকলন ২০২২

গানপার

COMMENTS

error: You are not allowed to copy text, Thank you