ক্যামেরন ডায়াজ উক্তিনিচয় (২)

ক্যামেরন ডায়াজ উক্তিনিচয় (২)

দেখতে যেমনই দেখাক আমায়, আমি তাতেই হ্যাপি। প্রায় সকালে ঘুম থেকে জেগে গোসলখানার আয়নায় গিয়া দাঁড়াই, নিজেরেই নিজে বলি, “ঠিকই তো আছো তুমি। টিপটপ সবকুচ।” অন্যদিকে দেখুন, ওয়েবসাইটগুলায় চোখ বুলাইতে যেয়ে হেল্পলেস্ লাগে নিজেরে, এত হুজ্জৎ, শ্রেষ্ঠত্ব আর অংবংচং দখলের লড়াই, নিজের ব্যক্তিগত শান্তিশ্রী জীবনের বিলোপ ঘটে ওই মুহূর্ত থেকেই, নিউজপেপারগুলায় খামাখা চোখ বুলাইতে যেয়ে। এইভাবে আমার ন্যায় সিরিয়াস্লি জিনিশগুলারে কেউ নিয়েন না অবশ্য, সঙ্গহীন হিম কাটাতে হবে দিন।

প্রত্যেকদিনই ফিরিয়ে ফিরিয়ে একটাই চিজবার্গার আর ফ্রেঞ্চফ্রাই খেয়ে যাই আমি।

বিশ্বাস না হলেও সত্যি যে আমার বাসায় টিভি নাই। বিকজ আমার মনে হয় এই জিনিশটা দানব একটা।

আমি ভীষণ মিষ্টি একটা মেয়ে এবং খালি অভিনেত্রী হিশেবে আটকে-পড়া ঘাটের মড়া না, কাজেই আমি মডেলিং করি।

রোজ কাজে যাব আর কাজশেষে একটা অপরিচিত লোকের লগে যাব বিছানায়, এইটা আমার পোষাবে না। আমি এমনকি কাজের শেষে টম ক্রুজের লগেও বিছানাযাত্রায় রাজি না। আমি এইসব জিনিশে মজা পাবার মানুষ না।

আব্বারে এইবার সাফ সাফ বলে রাখব ভাবতেসি, আব্বা, জার্নালিস্টদেরে একইঞ্চিও বিশ্বাস কইরেন না। আপনারে এরা যদি লগে বসিয়ে খুব তোয়াজ করে আর পানতামুক খাওয়ায়, তারপরও এদেরে আপনি হারাম বন্ধু ভাইবেন না। সাংবাদিকগুলার লগে দোহাই আল্লার কথাবার্তা বলতে যাইয়েন না।

নিজেরে ছাড়া আর-কারোরে নিয়া ফানতামাশা করা আমি মনে করি না উচিত।

চয়ন, সংকলন ও অনুবাদন : বিদিতা গোমেজ

… …

গানপার

COMMENTS

error: